এক্টিভেটেড চারকোল (কার্বন) কী? ত্বকের যত্নে অ্যাক্টিভেটেড চারকোল / কার্বনের ব্যবহার জেনে নিন

0
164
অ্যাক্টিভেটেড চারকোলের উপকারিতা
অ্যাক্টিভেটেড চারকোলের উপকারিতা

আজ, শুধুমাত্র স্বাস্থ্য সচেতন লোকেরাই জানেন যেত্বকের গভীরে ঢুকে ময়লা বার করতে অ্যাক্টিভেটেড চারকোলই যথেষ্ট। সাম্প্রতিক সময়ে চারকোল নিয়ে দেশ-বিদেশে তুমুল আলোচনা হচ্ছে। বাংলাদেশ 2012 সালে প্রথম বাণিজ্যিকভাবে সক্রিয় চারকোল উৎপাদন শুরু করে। এবং তখনই চীনের বাজারে এর বাণিজ্যিক রপ্তানি শুরু হয়। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে মধ্যপ্রাচ্যসহ উন্নত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে। আশ্চর্যের বিষয় হলো, আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষেরই এই মূল্যবান ও আশাব্যঞ্জক পণ্য সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই। সম্মানিত পাঠক, আজকের নিবন্ধে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব- অ্যাক্টিভেটেড চারকোল কী, অ্যাক্টিভেটেড চারকোলের উপকারিতা, রূপচর্চায় চারকোলের ব্যবহার এবং চারকোলের ব্যবহারের নিয়মাবলী।

অ্যাক্টিভেটেড চারকোল কী?

চারকোল কি
চারকোল কি

অ্যাক্টিভেটেড চারকোল আসলে কাঠকয়লা, তবে ঠিক যে কাঠকয়লা আপনি রান্নার জন্য ব্যবহার করেন তা নয়। অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ফুড গ্রেড অর্থাৎ শরীরে শোষিত হলে কোনো ক্ষতি হয় না। কিছু প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এর শোষণ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। আপনি ওষুধের দোকান এবং কিছু অনলাইন পোর্টাল থেকে সক্রিয় চারকোল পাউডার কিনতে পারেন। অর্থাৎ কয়লার উৎস যাই হোক না কেন, খুব উচ্চতায় রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে এর অভ্যন্তরীণ অবস্থার পরিবর্তন হলেই তাকে অ্যাক্টিভেটেড বা সক্রিয় কার্বন বলা যেতে পারে। অ্যাক্টিভেটেড চারকোল বা অ্যাক্টিভেটেড কার্বনন মানে একই জিনিস। আমি আপনাকে আবার মনে করিয়ে দিই যে অনেক লোক অ্যাক্টিভেটেড চারকোলের সাথে সাধারণ কাঠকয়লাকে গুলিয়ে ফেলেন। যদিও এই দুটি পদার্থের উৎপত্তি কার্বন থেকে, তবে দুটির মধ্যে একটি বড় পার্থক্য রয়েছে। তাই দেখতে একই রকম হলেও মনে রাখতে হবে সব কাঠকয়লা প্রসাধনী/ রুপচর্চা ও চিকিৎসার জন্য উপযোগী নয়।

চারকোল/ কাঠকয়লা কি দিয়ে তৈরি?

চারকোল তৈরি
চারকোল তৈরি

যে কোন জৈব পদার্থ (যা একসময় জীবিত ছিল) পুড়িয়ে কয়লা তৈরি করা যায়।
সক্রিয়/অ্যাকটিভেটেড কাঠকয়লা বিভিন্ন ধরনের জীবাশ্ম জ্বালানি, হাড়, পাটের খোসা, নারকেলের খোসা, জলপাই কাঠ ইত্যাদি থেকে তৈরি করা হয়।

সক্রিয়/ অ্যাকটিভেটেড চারকোলের ব্যবহার

ত্বকের যত্নে চারকোলের ব্যবহার
ত্বকের যত্নে চারকোলের ব্যবহার

চারকোল ফেসওয়াশ, স্ক্রাব, পিল-অফ মাস্ক, জলের ফিল্টার, মোবাইল ফোনের ব্যাটারি, প্রসাধনী, টুথপেস্ট, প্রতিষেধক, ফটোকপি মেশিনের কালি এবং অন্যান্য জীবন রক্ষাকারী ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

ত্বকের যত্নে সক্রিয়/অ্যাকটিভেটেড কাঠকয়লার ব্যবহার
যাদের ত্বক বেশি তৈলাক্ত তাদের জন্য অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ফেস মাস্ক হতে পারে দারুণ সমাধান।
এটি দিয়ে তৈরি ফেস মাস্ক আপনার মুখের ত্বকের ছিদ্রের গোড়ায় জমে থাকা ধুলোবালি, মৃত কোষগুলিকে বের করে দেয়। ফলে মুখের ত্বক উজ্জ্বল ও সতেজ দেখায়। এছাড়া এটি আমাদের শরীরে শোষিত হয় না তাই এটি ত্বকের ক্ষতি করে না।
নিয়মিত ব্যবহারে ব্রণের সমস্যা দূর হয়। এটি আপনার মুখের ব্রণের দাগ দূর করতেও বেশ কার্যকরী।
মনে রাখবেন, সরাসরি ত্বকে লাগানো থেকে বিরত থাকুন। বাজারে পাওয়া পরিশোধিত চারকোলের তৈরি ফেস মাস্ক ব্যবহারের চেষ্টা করুন।

আরও পড়ুনঃ   পাইলসের যন্ত্রণা কমানোর ঘরোয়া উপায়

অ্যাকটিভেটেড চারকোল ফেসপ্যাক

এই চারকোল ত্বকের জন্য খুবই সহায়ক। ত্বকের ব্রণের সমস্যা দূর করা থেকে শুরু করে মুখের অতিরিক্ত তেল নিয়ন্ত্রণ করে এই কাঠকয়লা। চারকোল তিনটি উপায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে: ক্লিনজার, স্ক্রাবার এবং ফেসপ্যাক। শিট মাস্ক থেকে ফেস স্ক্রাব পর্যন্ত, এখানে ৭ টি সক্রিয় চারকোল স্কিনকেয়ার পণ্য/ পদ্ধতি রয়েছে যা আপনাকে হোয়াইটহেডস, ব্ল্যাকহেডস থেকে মুক্ত করবে এবং আপনাকে সুন্দর এবং উজ্জ্বল ত্বক উপহার দিবে।
আপনি চাইলে বাড়িতে অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ফেসপ্যাক তৈরি করে পিল অফ মাস্ক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। কীভাবে ফেস মাস্ক তৈরি করবেন-

ডিপ ক্লিনজিং ফেস মাস্ক
অ্যাক্টিভেটেড চারকোল হল একটি পুষ্টিকর এবং ময়শ্চারাইজিং ফেস প্যাক যা আপনার ত্বককে সুস্থ ও পুনরুজ্জীবিত রাখতে সাহায্য করে। এই মাস্ক ত্বকের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে এবং আপনার ত্বককে গভীরভাবে পরিষ্কার করে।

ডিটক্স সেট

এই সেটের মধ্যে রয়েছে ম্যানিকোগান ক্লে এবং অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ক্লিনজার এবং ক্লে মাস্ক যা আপনার ত্বককে সম্পূর্ণরূপে রক্ষা করবে এবং এটিকে উজ্জ্বল রাখবে।

অ্যাক্টিভেটেড চারকোল পিল অফ মাস্ক
এই দূষণ-বিরোধী মাস্কটি ব্ল্যাকহেডগুলির সাথে লড়াই করে এবং অতিরিক্ত তেল নিয়ন্ত্রণ করে এবং গভীরভাবে পরিষ্কার করে, ছিদ্রগুলি খুলে দেয়। এটি সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযুক্ত এবং পুরুষ এবং মহিলা উভয়ই ব্যবহার করতে পারেন।

পুরুষদের জন্য অ্যান্টিপলিউশন ফেস স্ক্রাব

এই চারকোল স্ক্রাবটি পুরুষদের ত্বকের জন্য বিশেষভাবে তৈরি। এছাড়াও, এটি প্রাকৃতিক অ্যাক্টিভেটেড চারকোল দিয়ে তৈরি এবং হার্ড রাসায়নিক দিয়ে প্রি-ট্রিট  করা হয়, এটি সব ধরনের ত্বকে ব্যবহার করা নিরাপদ।

চারকোল শিট মাস্ক
বর্তমানে শিট মাস্কের চাহিদা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। এগুলি ব্যবহার করা সহজ এবং দ্রুত ফলাফল দেখায়৷ আপনার মুখ পরিষ্কার করুন এবং মাস্ক প্রয়োগ করুন। এটি ত্বকে 15-20 মিনিটের জন্য রেখে দিন এবং আপনার ত্বকে অতিরিক্ত সিরাম আলতো করে ম্যাসাজ করুন।

আরও পড়ুনঃ   লাল শাকের অসাধারণ স্বাস্থ্যগুণ

চারকোল পিল অফ মাস্ক
এই পিল-অফ মাস্কে শক্তিশালী কাঠকয়লা রয়েছে যা সহজেই ত্বক থেকে ময়লা এবং অতিরিক্ত তেল দূর করতে পারে এবং কার্যকরভাবে ব্ল্যাকহেডস প্রতিরোধ করতে পারে। এটি আপনার ত্বককে ভিতর থেকে একটি শক্তিশালী আভা দেয়।

অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ঘরোয়া ফেস প্যাক

2 টেবিল চামচ জল, 1 টেবিল চামচ বেন্টোনাইট কাদামাটি, 1 টেবিল চামচ সক্রিয় চারকোল পাউডার, 1 টেবিল চামচ খাঁটি মধু, 1 ফোঁটা লেবু তেল বা ল্যাভেন্ডার তেল নিন।

প্রথমে একটি পাত্রে জল ও তেল নিন, তারপর তাতে বেন্টোনাইট কাদামাটি ভালো করে মেশান, কয়েক মিনিট রেখে দিন। এবার কাঠকয়লার গুঁড়া এবং খাঁটি মধু মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করুন। শুষ্ক ত্বকের জন্য টক দই মেশান। এটি একটি ফেসপ্যাক হয়ে গেল।

এক্টিভেটেড চারকোলের আরো কিছু ব্যবহার

* অ্যাকটিভেটেড চারকোল ক্ষতিকারক পদার্থ শোষণ করে ত্বক পরিষ্কার করে। একটি ফেস মাস্ক হিসাবে সক্রিয় কাঠকয়লা ব্যবহার ব্যাকটেরিয়া, ক্ষতিকারক রাসায়নিক, বিষাক্ত পদার্থ এবং ধুলো দূর করে ত্বক পরিষ্কার করে।

* অ্যাকটিভেটেড চারকোল রোমকূপ সঙ্কুচিত করে। তাই মেকআপের আগে প্রাইমার হিসেবে অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ব্যবহার করলে ত্বক পরিষ্কার হয় এবং ছিদ্রগুলো ছোট হয়। ফলে মেকআপ ত্বকে খুব ভালোভাবে বসে।

* নিয়মিত অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ব্যবহারে ব্রণের সমস্যা দূর হয়। অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ত্বক থেকে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া দূর করে কয়েক দিনের মধ্যে ব্রণের সমস্যা কমায়। এছাড়াও, সপ্তাহে তিনবার অ্যাক্টিভেটেড কাঠকয়লা দিয়ে স্ক্রাবিং করলে ধীরে ধীরে ব্রণের দাগ কমে যায়।

* পোকামাকড়ের কামড়ের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে অ্যাক্টিভেটেড কাঠকয়লার জুড়ি নেই। মিনারেল ওয়াটারের সাথে অ্যাক্টিভেটেড চারকোল মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট তৈরি করুন এবং পোকামাকড়ের কামড়ে লাগান। সক্রিয় কাঠকয়লা পোকামাকড়ের বিষ শোষণ করে এবং খুব দ্রুত প্রদাহ কমায়।

এছাড়াও,
1. ব্ল্যাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস দূর করতে।
2. ত্বকের কালো দাগ দূর করতে।
3. মুখের অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে।

আরও পড়ুনঃ   মাত্র কয়েক মিনিট মুখে রাখুন রসুনের একটা কোয়া, তাহলেই দেখবেন মজা!

কাঠকয়লা নানাভাবে ব্যবহার করা যায়
ব্রণ এবং পিমপেলস নিরাময় :
1/2 চা চামচ অ্যালোভেরা জেল, 1/2 চা চামচ কাঠকয়লা, 1 ড্রপ টিট ট্রি ওয়েল। সমস্ত উপাদান মিশ্রিত করুন এবং পিমপেলস এর উপর প্রয়োগ করুন। 30 মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।
* খুশকি দূর করেঃ
2 চা চামচ শ্যাম্পু, 1/2 চা চামচ কাঠকয়লা মিশিয়ে চুলে লাগান, খুশকি দূর হবে।
*ডিটক্স স্ক্যাব:
1 চা চামচ অলিভ অয়েল, 1/2 চা চামচ চিনি, 1/2 কাঠকয়লা
সব উপকরণ মিশিয়ে স্ক্রাব করে খুব ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
* অতিরিক্ত তেল দূর করুন:
1 চা চামচ ফেস ওয়াশ, 1/2 চা চামচ চারকোল মিশিয়ে ফেস ওয়াশের মতো 1 মিনিট ম্যাসাজ করে ব্যবহার করুন, এটি মুখের অতিরিক্ত তেল দূর করবে।
* অবাঞ্ছিত লোম দূর করে:
1/2 চা চামচ কাঠকয়লা, 1 চা চামচ মধু মিশিয়ে 20 মিনিট রেখে দিন। সম্পূর্ণ শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সক্রিয় চারকোল আমাদের অবাঞ্ছিত লোম দূর করতে খুবই কার্যকরী।

ক্ষতিকর দিক
সক্রিয় কাঠকয়লা/Activated charcoal ত্বকে সরাসরি কোন প্রভাব ফেলে না। তবে অতিরিক্ত ব্যবহারে আপনার ত্বকে সমস্যা হতে পারে। ব্ল্যাকহেডস দূর করার পাশাপাশি ফেস মাস্ক মুখের ত্বক থেকে তেলও দূর করে। তবে এই ধরনের ফেস মাস্ক বারবার ব্যবহার করলে ত্বকের জন্য প্রয়োজনীয় তেলের ঘাটতি দেখা দিতে পারে। আর এর কারণে আপনার ত্বক হয়ে যেতে পারে অতিরিক্ত শুষ্ক। তাই অতিরিক্ত তৈলাক্ত ত্বকে সপ্তাহে দুইবার এবং স্বাভাবিক ত্বকে সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

কাঠকয়লার দাম

চারকোলের দাম
চারকোলের দাম

আন্তর্জাতিক বাজারে 1 কেজি অ্যাক্টিভেটেড চারকোলের দাম 100-400 টাকা। এবং 1 টন সক্রিয় চারকোলের পাইকারি মূল্য 2000 থেকে 6000 টাকা। অন্যদিকে অ্যাক্টিভেটেড চারকোল ফেস মাস্কের দাম ৩৫০ থেকে ৫৫০ টাকা।

ত্বকের সৌন্দর্যের জন্য আপনি যে পণ্যই ব্যবহার করুন না কেন, সবসময় মানসম্পন্ন এবং ভালো ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করুন।
আপনি কি কখনও সৌন্দর্য চর্চায় সক্রিয় কাঠকয়লা ব্যবহার করেছেন? আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমাদের আজকের লেখা নিয়ে আপনার কোন মতামত, অভিযোগ কিংবা পরামর্শ থাকলে আমাদের জানাতে পারেন বা কমেন্ট করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 + 20 =