শুক্রাণু বৃদ্ধির উপায়? যে দম্পতিরা সন্তান নিতে চাইছেন তারা রোজ খান এই ১৫টি খাবার

0
25592
শুক্রাণু বৃদ্ধির উপায়

পুরুষত্বহীনতা বা পুরুষদের বন্ধ্যাত্বের চিকিত্‍‌সায় আয়ুর্বেদে মধুর ব্যবহার নতুন নয়। আয়ুর্বেদশাস্ত্রে উল্লেখ রয়েছে, মধু মিশিয়ে নিয়মিত এক গ্লাস করে দুধ খেলে স্পার্ম কাউন্ট শূন্য থেকে বেড়ে ৬ কোটি পর্যন্ত হতে পারে। ভাবছেন এটা কিভাবে সম্ভব।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দুধের মধ্যে থাকা ভিটামিন এ পুরুষ সেক্স হরমোনের পরিমাণ বাড়ায়। অন্যদিকে, মধুতে থাকা ভিটামিন ই ও জিঙ্ক সেক্স স্টিমুল্যান্ট হিসেবে কাজ করে পুরুষদের যৌনশক্তি বাড়ায়।

অনলাইন এক সমীক্ষায় জানা গেছে, ১৮ থেকে ৫০-এর মধ্যে বয়স এমন ১০ শতাংশ পুরুষই লো স্পার্ম কাউন্টের শিকার। তাই নিয়মিত মধু মিশিয়ে দুধ খেলে ভালো উপকার পাওয়া যাবে।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ঘরোয়া বেশ কিছু উপায়ে শুক্রাণুর সংখ্যা বাড়ানো যায়। তবে, দুধু ও মধুই এর মধ্যে সহজলভ্য। এক গ্রাস দুধ ভালো করে ফুটিয়ে নিয়ে, তাতে মধু মিশিয়ে পান করতে হবে। নিয়মিত কিছুদিন খেলে বীর্যে স্বাস্থ্যকর শুক্রাণুর সংখ্যা বাড়বে।

এর বাইরেও যৌনশক্তি বাড়াতে চাইলে আরও কিছু ঘরোয়া উপায় রয়েছে। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ২/৩ কোয়া রসুন মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খেলে উপকার পাবেন।

যে দম্পতিরা সন্তান নিতে চাইছেন তারা রোজ খান এই ১৫টি খাবার

সন্তান ধারণে দেরি হওয়া কিংবা সন্তান একেবারেই না হওয়া আজকাল খুব সাধারণ একটি সমস্যা, নারী-পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রেই। আমাদের স্ট্রেস ভরা জীবন যাপন, অস্বাস্থ্যকর লাইফ স্টাইল, পরিবেশ দূষণ, ভেজাল খাদ্য, শরীরের যত্নের অভাব ইত্যাদি নানান কারণে সন্তান ধারণে অক্ষমতা দেখা যায় আজকাল। দেখা যায় অনেক মাস বা বছর চেষ্টার পর, নানান রকম চিকিৎসা করিয়ে তবেই সন্তান নিতে পারেন কোন দম্পতি। আপনিও কি এমন সমস্যায় ভুগছেন? সন্তান নিতে চাইছেন কিন্তু হচ্ছে না? নারী-পুরুষ উভয়েই নিজের নিয়মিত খাদ্য তালিকায় রাখুন এই খাবারগুলো। এই ৬টি খাবার উর্বরতা বৃদ্ধি করে, নারীকে গর্ভবতী হতে সহায়তা করবে এবং পুরুষের জন্য সুস্থ বীর্য উৎপাদন করবে।

আরও পড়ুনঃ   শিক্ষামূলক পোস্ট: নারীদের যোনি টাইট বা সঙ্কোচনের উপায় কী ?

চিনে নিন সেই উপকারী খাবারগুলো।

১) কলা
কলাতে রয়েছে ভিটামিন এ,সি,বি1. শুক্রাণু উত্পাদন করতে এবং যৌন ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। কলাতে রয়েছে ব্রোমলিন এনজাইম যা সেক্স হরমোন নিয়ন্ত্রণ করার সাহায্য করে। সুপারফুড কলায় আছে ভিটামিন বি-৬ ছাড়াও আরও বেশ কিছু চমৎকার উপাদান, যা নারীদের মিন্সট্রেশন নিয়মিত রাখে। যারা সন্তান ধারণে চেষ্টা করছেন, তাঁদের জন্য নিয়মিত একটি বা দুটি কলা খাওয়া ডিম্বাণু ও শুক্রানুর মান উন্নত করতে সাহায্য করবে।

২) বাদাম
পুরুষের শুক্রানুর মান উন্নত করতে অত্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা রাখে হরেক রকমের বাদাম। বিশেষ করে কাঠ বাদাম, চীনা বাদাম, পেস্তা ইত্যাদি। টানা ১২ সপ্তাহ প্রতিদিন এক মুঠো বাদাম খান্ম নিশ্চিত ফল পাবেন।

৩) অলিভ ওয়েল
নিজেদের খাবারে তেল বা ঘি এর বদলে আজ থেকেই শুরু করে দিন অলিভ ওয়েলের ব্যবহার। এই তেল রোজকার খাবারে নিয়মিত ব্যবহার করলে উর্বরতা ও গর্ভধারণের সম্ভাবনা বাড়ে ৩ গুণ পর্যন্ত। নারী ও পুরুষ উভয়ের উর্বরতা বাড়াতেই এই তেল অত্যন্ত সহায়ক। এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ ওয়েল ব্যবহার করবেন।

৪) সূর্যমুখীর তেল
এতে আছে উচ্চমাত্রার ভিটামিন ই, যা উর্বরতা বৃদ্ধি করতে অত্যন্ত সহায়ক। রান্নায় ব্যবহার করুন।

৫) অ্যাভোকাডো
শত গুণে ভরপুর এই ফলটি কেবল মজাদারই নয়, বরং উর্বরতা বৃদ্ধিতে অত্যন্ত সহায়ক। এই ফল নিয়মিত খেলে জননাঙ্গের ফাংশন উন্নত হয় এবং নারীদের সুস্থ ডিম্বাণু তৈরির হার বাড়ে।

৬) আদা
আদা যে কোন রূপেই পুরুষের উর্বরতা বৃদ্ধিতে অত্যন্ত সহায়ক। নারীরা অধিক উপকারিতা পেতে রোজ দুই কাপ পর্যন্ত আদা চা পান করুন মধু মিশিয়ে।

৭) ডিম

ডিম-র মধ্যে উপস্হিত ভিটামিন প্রজনন ক্ষমতার বৃদ্ধি ঘটায়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লিঙ্গের কোষগুলি অকার্যকর হওয়ার থেকে রক্ষা করে।

৮) ডার্ক চকলেট

ডার্ক চকলেটের খাদ্যাভ্যাস পুরুষদের শরীরে বীর্য পরিমাণ বৃদ্ধি করে। এর ফলে শুক্রাণুর সংখ্যাও বৃদ্ধি পায়।

৯) টমেটো

ইনফর্টিলিটীর দ্বারা পীড়িত মানুষের মধ্যে লাইকোপিনের মাত্রা খুব কম থাকে। ক্যারেটোনাইট লাইকোপিন শুক্রাণুর সংখ্যা এবং কার্যকলাপ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। টমেটো এই ধরনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট জন্য খুব ভালো উত্স।

১০)গাজর

গাজরে উপস্হিত ভিটামিন পুরুষদের স্নায়ুতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে এবং যৌন কার্যকলাপ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুনঃ   ভয়ানক যৌন সংক্রামক রোগ সিফিলিস থেকে সাবধান!

১১) পালংশাক

ফলিক অ্যসিডে সমৃদ্ধ পালংশাক শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধি করতে এবং তাকে ভালোভাবে কাজ করতে সাহায্য করে।
 ১২) আখরোট

আখরোট বীর্যের ভলিউম বাড়ায়। তার সাথে শুক্রাণু উত্পাদনেও সাহায্য করে। আখরোটে থাকে ওমেগা-3,ফ্যাটি অ্যাসিড যা পুরুষ লিঙ্গে রক্তসংবহনের কাজ খুব ভালোভাবে করে।

১৩) বেদানা

বেদানায় রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা শরীরে শুক্রাণুর বৃদ্ধির পরিমাণ কমিয়ে দেয়ন শরীরে মেলোনদিয়েলদিহাদের পরিমাণ হ্রাস করে দেয়। যার ফলে শুক্রাণুর ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

 ১৪) রসুন

রসুনে রয়েছে ভিটামিন বি 6 এবং সেলেনিয়ামের আধিক্য। রসুন খেলে কামশক্তি বৃদ্ধি পায়। এলিসীনের ভালো উত্স হওয়ার কারণে রসুন যৌন অঙ্গে রক্তসংবহনের সাথে ধারণক্ষমতাও বাড়ায়।

১৫)কমলালেবু

প্রতিদিন কমলালেবু থেলে শরীর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ে। রোজ এর সেবন করলে আপনার যৌন জীবন ভালো থাকবে। আয়ুর্বেদে কমলালেবুকে গুণের ভান্ডার বলা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ সন্তান চান? জেনে নিন শুক্রাণু বৃদ্ধির ৮টি উপায় এবং শুক্রাণুর সক্ষমতা বাড়ানোর ১০টি টিপস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

6 + seventeen =