রূপচর্চায় মেথি-মেথি ত্বকের জন্য ভালো?

0
433
মেথি, ত্বকের জন্য মেথি

মেথি এমন একটি শস্য যাকে মসলা, খাবার ও পথ্য- তিনটিই বলা চলে। রক্তে চিনির মাত্রা কমাতে এর রয়েছে বিস্ময়কর শক্তি। রাতে মেথি ভিজিয়ে রেখে সকালবেলা খালি পেটে সে পানি খেলে শরীরের জীবাণু দূর হয়। তা ছাড়া মেথি কৃমির যম। রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমাতে এর বিশেষ ভূমিকা রয়েছে।
তারুণ্য ধরে রাখতেও মেথি দারুণ কার্যকর। এসব ছাড়াও ত্বকচর্চায় রয়েছে মেথির ব্যবহার। গরমের কারণে ত্বকে সৃষ্ট ঘা ও ত্বকের বিভিন্ন অসুখ সারাইয়ে কাজে লাগে মেথি। মেথির বিশেষ কিছু প্যাক রূপচর্চায় হরহামেশাই ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

মেথিতে উজ্জ্বল ত্বক

মেথিদানা আমাদের শরীরের ফ্রি র‌্যাডিক্যালগুলোকে ধ্বংস করে। এই ফ্রি র‌্যাডিক্যালের কারণেই মুখে কালো দাগ হয়। বলিরেখা দেখা যায়। মেথি সেই ফ্রি র‌্যাডিক্যালকে নষ্ট করে দেয় বলেই ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। প্রাকৃতিক এই উপাদান ব্রণ দূর করার পাশাপাশি চেহারার বয়সের ছাপ কমায় এবং কালচে ভাব দূর করে ত্বক উজ্জ্বল করে।

মেথি ত্বকের কী কী উপকার করে, তার একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে বোল্ডস্কাই ওয়েবসাইটের লাইফস্টাইল বিভাগে। আপনি চাইলে এই পরামর্শগুলো একবার দেখে নিতে পারেন :

ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে 

মেথি ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করতে বেশ উপকারী। এর জন্য মেথির পেস্ট বানান প্রথমে, তারপর এর সঙ্গে সমপরিমাণ মধু মেশান। ভালো করে পেস্ট বানিয়ে, এটি মুখে লাগান। ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এটিও সপ্তাহে দু থেকে তিন করতে পারেন। এই প্যাকটি শুধু ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া নয়, ব্রণও অন্যান্য ফুসকুড়িও কমায়।

ত্বকের ব্রণ দূর

মেথি শিলপাটায় বেটে গুঁড়া করে নিন। এবার এর সঙ্গে হালকা গরম পানি ও মধু মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। এর পর মুখের ব্রণের ওপর লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, অনেক দ্রুত আপনার ত্বকের ব্রণ দূর হবে।

আরও পড়ুনঃ   ১২ টি প্রাকৃতিক মাউথফ্রেশনার সম্পর্কে জেনে নিন

উজ্জ্বল চেহারা এবং বয়সের ছাপ!

মেথি চেহারার বয়সের ছাপ দূর করতেও বেশ কার্যকর। মেথি গুঁড়ার সঙ্গে গরম দুধ ও মধু মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ধীরে ধীরে আপনার চেহারার বয়সের ছাপ দূর করবে। বা বাড়িতে একটু মেথি ভিজিয়ে রেখে পেস্ট বানান। তারপর সেটার সঙ্গে একটু দুধ মেশান। এই প্যাকটি নিয়মিত সপ্তাহে দু থেকে তিনবার লাগান ভালো ফল পেতে। ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ত্বক ধীরে ধীরে তার স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা পাবে।

মেথি ও মধু

মেথি ও মধুর মিশ্রণ ত্বকের মরা চামড়া দূর করে। এ জন্য এক চা-চামচ মেথি পেস্টের সঙ্গে এক চা-চামচ মধু মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে ২০ থেকে ৩০ মিনিট রেখে দিন। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এ প্যাক ত্বকের মরা চামড়া দূর করার পাশাপাশি ত্বক থেকে বয়সের ছাপ দূর করে।

মেথি ও দুধ

মেথি গভীর থাকে ত্বক পরিষ্কার করে। এটি লোমকূপ খুলে দিয়ে ত্বকের ভেতর থেকে ময়লা বের করে আনে। এ জন্য মেথি চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ব্লেন্ড করে নিন। তারপর এক টেবিল চামচ মেথির পেস্টের সঙ্গে দুই চা-চামচ দুধ মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি চোখের চারপাশ বাদ দিয়ে সারা মুখ ও গলায় মেখে ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে দিন। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এ কাজ সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার করলে ত্বক মসৃণ হবে।

ত্বককে পরিষ্কার রাখে 

ত্বককে পরিষ্কার করার জন্য আমরা বাজার চলতি ক্লিনজিং মিল্ক ব্যবহার করি। কিন্তু বাড়িতে যখন আছে মেথি তখন চিন্তা কিসের। কারণ মেথি আপনার ত্বককে পরিষ্কার রাখবে ভালোভাবে। মেথি ত্বকের ছিদ্র গুলিকে খুলে ময়লা বের করে। এর জন্য মেথিকে সারারাত ভিজিয়ে রেখে পেস্ট বানান। তারপর একটু কাঁচা দুধ মেশান। ভালো করে ফেটিয়ে এটি মুখে লাগান। ২০ থেকে ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি প্রাকৃতিক ক্লিনজারের কাজ করবে। তবে মনে রাখবেন ক্লিনজার ব্যবহার করার পর টোনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না। কারণ ক্লিনজার ত্বকের ছিদ্র গুলিকে খুলে ময়লা বার করে। আর টোনার সেই ছিদ্রগুলিকে বন্ধ করে।

আরও পড়ুনঃ   নিশ্চিত ভাবে দূর করুন ত্বকের ফাটা দাগ!

মেথি ও টক দই

এক টেবিল চামচ মেথির গুঁড়ার সঙ্গে সমপরিমাণ টক দই মিশিয়ে মুখে ও গলায় মেখে আধঘণ্টা রেখে দিন। এরপর ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। টক দই ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। মেথির সংযোগে সেটি আরও কার্যকর হয়। এ প্যাক নিয়মিত ব্যবহার করলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে।

ত্বকের মরা কোষ দূর

সারা রাত মেথি পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে শিলপাটায় বেটে এর সঙ্গে টক দই ও ময়দা মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এবার পুরো মুখে হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকে প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে ত্বকের মরা কোষ দূর করে। এতে ত্বক নরম ও মসৃণ হবে।

ত্বকের কালচে ভাব দূর

 দুধের সঙ্গে মেথি গুঁড়া মিশিয়ে সপ্তাহে অন্তত একদিন মুখে ব্যবহার করুন। এটি ত্বকের কালচে ভাব দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল ও দাগহীন করতে সাহায্য করে।

মেথি ও অলিভ অয়েল

ত্বকের রোদে পোড়া দাগ দূর করতে মেথি ও অলিভ অয়েলের মিশ্রণ ভালো কাজ করে। এ জন্য দুই টেবিল চামচ মেথি বীজ ভালো করে ধুয়ে পানিতে সেদ্ধ করে নিন। সেই পানি ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করুন, প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক চা-চামচ মেথির পানির সঙ্গে এক চা-চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে মুখে গলায় ও হাতে মেখে ঘুমান। নিয়মিত এ কাজ করলে ত্বক থেকে রোদে পোড়া দাগ দূর হবে।

ত্বককে উজ্জ্বল ও পরিষ্কার

 নিয়মিত সকালে খালি পেটে মেথি ভেজানো পানি পান করুন। এটি শরীরের ভেতরে প্রবেশ করে ত্বককে উজ্জ্বল ও পরিষ্কার রাখে। এমনকি দ্রুত ওজনও কমায়।

মেথি ও গোলাপজল

অনেক ধরনের ফেসপ্যাক ব্যবহার করেও যারা ভালো ফল পাচ্ছেন না, তারা এক টেবিল চামচ মেথি সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে একটি পেস্ট তৈরি করে নিয়ে সেই পেস্টের সঙ্গে দুই চা চামচ গোলাপ জল ও এক চা চামচ দই মিশিয়ে নিন। এ প্যাক নিয়মিত ব্যবহার করলে ত্বকের হারানো উজ্জ্বলতা অচিরেই ফিরে আসবে।
মেথি ও বেসন

আরও পড়ুনঃ   কেমিক্যাল ছেড়ে বাড়িতেই তৈরি করুন লিপগ্লস

ত্বকে ভাঁজ পড়া, রিংকেল ও চামড়া শুকিয়ে যাওয়া রোধ করতে মধু ও বেসনের প্যাক খুবই কার্যকর। মেথির পেস্টের সঙ্গে অল্প পরিমাণ পানি ও বেসন মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে তা ২০ থেকে ৩০ মিনিট ত্বকে মেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ত্বকে ময়শ্চারাইজার মেখে নিন। এ ফেসপ্যাকটি ত্বক কালো হয়ে যাওয়া রোধ করার পাশাপাশি ত্বকের ডার্ক সার্কেল কমায়।

ত্বকের রঙ ফর্সা করতে

ত্বককে ফর্সা করতেও মেথি দারুন ভাবে কাজ করে। এর জন্য মেথির পেস্ট বানিয়ে তাতে একটু দই মেশান সাথে দিন অল্প গোলাপজল। ভালো করে পেস্ট বানিয়ে ত্বকে লাগান। তারপর ২০ থেকে ২৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি সপ্তাহে তিন দিন ব্যবহার করুন।

সকালে খালি পেটে এক গ্লাস মেথির পানি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 + 7 =