চিয়া বীজ বা চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম মেনে খেলে এটিই হতে আপনার জন্য একটি সুপার ফুড

0
118
চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া বীজ বা চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম মেনে খেলে এটিই হতে আপনার জন্য একটি সুপার ফুড

চিয়া বীজ বা চিয়া সিড (Chia Seed) বর্তমানে একটি সুপরিচিত বীজের নাম। মানুষের শরীরের জন্য চিয়া সিড এর উপকারিতা অনেক। কিন্তু আমাদের অধিকাংশেরই সঠিকভাবে চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম জানা নেই। এই না জানার জন্যই চিয়া সিড এর উপকারিতা থেকে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি। তাই আজকে আমরা আলোচনা করতে যাচ্ছি চিয়া বীজ বা চিয়া সিড কি, সঠিকভাবে চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর দাম নিয়ে। আশা করছি আজকেই আলোচনা আপনাকে চিয়া সিড সম্পর্কে পুর্ন ধারনা দেবে।

চিয়া সিড চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম চিয়া সিড এর উপকারিতা চিয়া সিড কি চিয়া সিড এর দাম চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায় চিয়া সিড এর বাংলা নাম
চিয়া বীজ বা চিয়া সিড

চিয়া বীজ বা চিয়া সিড কি?

কিন্তু অনেকেই আমরা চিয়া সিড কি তা জানিনা। অনেকে তোকমা দানাকে ভুল করে চিয়া সিড মনে করে। কিন্তু এই দুটি সম্পুর্ন দুই জিনিস। মূলত চিয়া গাছের ছোট কালো বীজকেই চিয়া সিড বলে। এর বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে Salvia Hispanica. এটি সাধারনত সাদা কালো ও কিছুটা বাদামী রঙ্গের হয়ে থাকে। চিয়া সিড আকারে অতিক্ষুদ্র ও মসৃন হয়ে থাকে।

 

পুষ্টিগুনে ভরপুর চিয়া সিড

চিয়া সিড এর অনেক পুষ্টিগুন রয়েছে। ইউএসডিএ (Unite States Department of Agriculture) এর তথ্য মতে ১০০ গ্রাম চিয়া সিডে রয়েছেঃ

  • ৬% পানি
  • ৪৮৫ ক্যালোরি
  • ৩৪.৫ গ্রাম খাদ্যআঁশ বাই ফাইবার
  • ৪২ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট
  • ১৬.৫ গ্রাম প্রোটিন
  • ৩০.৭ গ্রাম ফ্যাট
  • ওমেগা-3 ১৭.৮৩ গ্রাম
  • ওমেগা-6 ৫.৮৪ গ্রাম
চিয়া সিড চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম চিয়া সিড এর উপকারিতা চিয়া সিড কি চিয়া সিড এর দাম চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায় চিয়া সিড এর বাংলা নাম
পুষ্টিগুনে ভরপুর চিয়া সিডঃ

এছাড়াও চিয়া সিড প্রতিদিন শরীরের জন্য জিংক, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস সহ নানান খনিজ উপাদানের চাহিদাকে পূরণ করতে সক্ষম। শুধু মাত্র ২৮ গ্রাম চিয়া সিডে যে পরিমান খাদ্যআঁশ থাকে তা একজন পুরুশ বা নারীর প্রতিদিনের খাদ্যআঁশ বা ফাইবারের চাহিদা মেটা যথেষ্ট।

চিয়া সিড এর উপকারিতা

পুষ্টিগুনে অনন্য এই চিয়া সিড। শরীরের জন্য চিয়া সিড এর উপকারিতা এতই বেশী যে একে সুপার ফুড হিসেবে অখ্যা দেয়া হয়েছে। প্রাচীন সভ্যতা থেকে চিয়া সিডকেে একটি পুষ্টিগুনে সমৃদ্ধ খাদ্যবীজ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে যা বর্তমান আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞানেও প্রমানিত। পুষ্টিবিদরা দৈনিক নুন্যতম ২ চামচ (১ আউন্স) চিয়া সিড খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। কারন চিয়া সিড এর প্রতি আউন্সে আছে দৈনিক চাহিদার আয়রন ১২%, ক্যালসিয়াম ১৪%, ম্যাগনেসিয়াম ২৩%, ফসফরাস ২০%, জিংক ১২% সহ অনেক গুরত্বপুর্ন মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট।

আরও পড়ুনঃ   কাজে নামার আগে কেন খাবেন ‘আদাজল’

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করেঃ

চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া সিড রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করে

চিয়া সিড এর উপকারিতা অনেগুলোর মধ্যে একটি হলো রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন। চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম জেনে নিয়মিত চিয়া সিড খেলে আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে থাকবে। বর্তমান আধুনিক বিজ্ঞানদ্বারা প্রমানিত চিয়া সিড আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করে। তাই রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে দৈনিক চিয়া বীজ খাওয়া উচিৎ।

ক্যান্সার ও দীর্ঘমেয়াদী রোগের ঝুকি কমায়ঃ

চিয়া সিড এর উপকারিতা অপরিসীম। যারা প্রতিনিয়ত চিয়া সিড খাচ্ছেন তাদের মধ্যে ক্যান্সার বা দীর্ঘমেয়াদী বিভিন্ন রোগের প্রবনতা খুবই কম। কারন চিয়া সিড একটি এন্টিওক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ বীজ। এই বীজে রয়েছে কোয়ারসেটিন (Quercetin) এবং কেম্পফেরল (Kaempferol), যা আপনাকে ক্যান্সুরেসহ বিভিন্ন দীর্ঘমেয়াদি রোগ থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করবে।

চিয়া সিড দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করেঃ

চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া সিড দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করে

সামাজিক মাধ্যমে চিয়া সিডকে ফ্যাট বার্নারও বলে। যদি আপনি চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম জেনে খেয়ে থাকে তাহলে আপনার ওজন অবশ্যই কমবে। চিয়া সিডে রয়েছে প্রোটিন ও উচ্চমাত্রায় ফাইবার যা আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে। চিয়া সিডে যে ফাইবার রয়েছে তা মূলত দ্রবণীয়। চিয়া সিড পানি চুষে নিয়ে জেলির মত বর্ণ ধারন করে। এটি আমাদের বিপাকপক্রিয়ার গতি কমিয়ে আনে যার ফলে আমাদের অনেক্ষন পেট ভরা থাকে এবং ক্ষুধাও কম অনুভব হয়। চিয়া সিডে যে প্রোটিন রয়েছে তা আমাদের অতিরিক্ত খাদ্যগ্রহনের চাহিদা কমিয়ে ফেলে এবং ক্ষুধা নিবারন করে যার ফলে যারা ওভারোয়েট বা ওবেসিটিতে আক্রান্ত তাদের দ্রুত ওজন কমানোর জন্য অত্যান্ত কার্যকর।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়ঃ

চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া সিড হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়

চিয়া সিড এর উপকারিতাগুলোর মধ্যে একটি গুরুত্বপুর্ন হচ্ছে হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। চিয়া সিডে যে ফাইবার এবং অতিমাত্রায় ওমেগা ৩ রয়েছে তা হৃদযন্ত্রকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। রক্তে খারাপ কোলেস্টেরল LDL বেড়ে যাওয়ার কারনে হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ে। কিন্তু চিয়া সিডে থাকা ফাইবার এই LDL এর পরিমান কমিয়ে আনতে কার্যকর। যার কারনে স্বাভাবিকভাবেই হৃদরোগের ঝুঁকি কমে যায়।

আরও পড়ুনঃ   দুধ কখন পান করবেন, রাতে নাকি সকালে?

হাড় সুস্থ রাখতেঃ
চিয়া সিড এমন কিছু উপাদানে ভরপুর যা আপনার হাড়ের সুস্থতা নিশিচত করে। যেমন ALA, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম এবং মাগনেসিয়াম। (Bone Mineral Density) বোন মিনারে ডেনসিটি সুস্থ ও মজবুজ হাড় নিশিচত করে। গবেষনায় দেখা গিয়েছে, চিয়া সিডে বিদ্যমান ক্যালসিয়াম এর পরিমান এত বেশী যে তা দুগ্ধজাত খাবারের চেয়েও অধিক উত্তম।

চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম

চিয়া সিড এর উপকারিতা পাওয়ার জন্য চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম জানতে হবে। চিয়া বীজ বা চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম অনেক আছে। চাইলে আপনি অনেক পদ্ধতিতেই চিয়া সিড খেতে পারেন। যেমনঃ সালাদ হিসেবে, স্মুথি বানিয়ে, ড্রিংকস তৈরি করে ইত্যাদি।

চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম

স্মুথি বানিয়েঃ
চিয়া সিড স্মুথি বানিয়ে খেতে অনেকেই পছন্দ করেন। আপনি চাইলে খেজুর বাদাম, কলা ও চিয় সিড ব্লেন্ডারে একসাথে স্মুথি বানিয়ে খেয়ে নিতে পারেন। চাইলে টক দই, শসা, চিয়া সিড ব্লেন্ড করে স্মুথি বানাতে পারেন।

সালাদ হিসেবেঃ
যে কোন প্রকার ফলমুল কাটা বা সালাদ এর উপর চাইলেই চিয়া সিড ছিটিয়ে খাওয়া যেতে পারে। বলা যায় এটিই সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি এবং জনপ্রিয়। বেশিরভাগ মানুষ এভাবেই খেতে পছন্দ করেন। বলা যায় কোন ঝামেলাই নেই।

ড্রিংকস বা জুসের সাথেঃ
আপনি ফলের জুস বানাচ্ছেন সাথে চিয়া সিড মিশিয়ে দিন। এতে পুষ্টিগুন তো বৃদ্ধি পাবেই সাথে খেতেও টেস্টি হবে। তবে চিয়াসিড মিক্স করার কারনে পানির পরিমান একটু বাড়িয়ে দিতে পারেন।

চিয়া সিড এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা চিয়া সিড এর অপকারিতা

চিয়া সিড এর উপকারিতার সাথে সাথে কিন্তু চিয়া সিড এর অপকারিতা বা কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও কিন্তু আছে। তবে তা সবার হয়না। কিছু কিছু মানুষের কিছু শারীরিক সমস্যা বিদ্যমান থাকার কারনে এমনটা হয়ে থাকে। চিয়া সিড খাওয়ার কারনে যে সকল পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে তা হলোঃ

  • বদহজম হওয়া
  • শ্বাসকষ্ট বা দম বন্ধ ভাব হওয়া
  • এল্যার্জি বেড়ে যাওয়া
  • রক্তের ঘনত্ব হ্রাস
আরও পড়ুনঃ   অর্শ বা পাইলসের সমস্যা সমাধানে ঘরোয়া ১০ উপায়!
চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া সিড এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা চিয়া সিড এর অপকারিতা

উপরের সমস্যা গুলো সাধারনত যারা দীর্ঘদিন ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের ঔষধ খাওয়া অভ্যস্ত তাদের হয়। এমন যদি কারো দেখা যায় তবে অবশ্যই চিয়া সিড খাওয়া বন্ধ করে দিন ও চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়

অনেকেই এই সমস্যায় ভুগেন। অনেকেই জানেন না চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়। যেহেতু এটি একটি বীজ জাতীয় খাবার তাই আমাদের লোকাল মার্কেটে এটি তেমন পাওয়া যায় না। আপনি এটি খুব সহজেই যেকোন অর্গানিক শপ থেকে নিতে পারেন। বিভিন্ন অনলাইন মার্কেট থেকেও এটি নিতে পারেন। এছাড়া যেকোন সুপার শপে আপনি এটি পেয়ে যাবেন। আশা করছি চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায় এই চিন্তা থেকে আপনি মুক্ত হলেন।

চিয়া বীজ বা চিয়া সিড এর দাম

চিয়া সিড এর দাম নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই কনফিউশন আছে। আসলে বিভিন্ন সপে এর দাম এর বের ভিন্নতা দেখা যায়। তবে আপনি ধরে নিতে পারেন ১০০ গ্রাম চিয়া সিড এর দাম প্রকারভেদে ৬০-৮০ টাকা হতে পারে অর্থাৎ প্রতি কেজি ৬০০-৮০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। চিয়া সিড এর দাম এর এই ভিন্নতার কারন হচ্ছে প্রোডাক্ট কোয়ালিটি এবং কোন শপ থেকে নিচ্ছেন আপনি তার ওপর।

চিয়া সিড, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায়, চিয়া সিড এর বাংলা নাম,
চিয়া বীজ বা চিয়া সিড এর দাম

আশা করছি আমাদের আজকের আলোচনা থেকে আপনি চিয়া সিড কি, চিয়া সিড এর উপকারিতা, চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম, চিয়া সিড এর দাম, চিয়া সিড কোথায় পাওয়া যায় এই সম্পর্কে পুর্ন ধারনা পেয়েছেন। পোষ্টটি যদি আপনাকে এতটুকু সাহায্য করে থাকে এটি আপনার বন্ধু ও সজনদের শেয়ার করার বিশেষ অনুরোধ রইলো।

BD Health ভিজিট করার জন্য আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

আমার লেখা আরো পোষ্ট পড়তে এই লিংকে ক্লিক করতে পারেনঃ Asif Moin

ভিডিওঃ


https://www.youtube.com/watch?v=nOMzMYxA4gY

 

চিয়া সিড নিয়ে আরো জানতে আমার এই পোষ্টটি দেখতে পারেনঃ

চিয়া সিড এর উপকারিতা ও অপকারিতা কী? চিয়া সিড খাওয়ার নিয়ম? যে সব কারণে চিয়া সীড একটি সুপারফুড!

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 + sixteen =